শুক্রবার, ২১ জুন, ২০২৪
Friday, 21 June, 2024
ঈদের ছুটি শেষে ঢাকামুখী মানুষের ঢল
প্রিয়জনদের সঙ্গে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করে নিতে ঢাকা ছেড়েছিল মানুষ। সেই আনন্দ ও ছুটি শেষে জীবিকার তাগিদে ফের রাজধানীমুখী হচ্ছে তারা। শুক্রবার (২১ জুন) সকাল থেকেকর্মজীবী মানুষরা ঢাকায় ফিরতে শুরু করেছেন।

বন্যায় ভাসছে সিলেট-সুনামগঞ্জ

কাঁচা মরিচ ও পেঁয়াজের ঝাঁজে নাভিশ্বাস

ফ্রেন্ডশিপ পর্বত জয় করলেন বাংলাদেশের জাফর সাদেক

ছাগলকাণ্ডে বেরিয়ে আসছে চাঞ্চল্যকর তথ্য

আখাউড়া স্থলবন্দর দিয়ে আমদানি-রফতানি শুরু
ঈদুল-আজহা উপলক্ষ্যে টানা ৪ দিন বন্ধ থাকার পর ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া স্থলবন্দর দিয়ে ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে আমদানি-রফতানি বাণিজ্য শুরু হয়েছে। ছুটি শেষে বন্দরের ব্যবসায়ী, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পদচারণায় কর্মচাঞ্চল্য আখাউড়া স্থলবন্দর। বৃহস্পতিবার সকালে আখাউড়া স্থলবন্দরের ট্র্যাফিক ইন্সপেক্টর রুকুনুজ্জামান আবেদিন বাণিজ্য শুরুর তথ্য নিশ্চিত করেছেন। রুকুনুজ্জামান বলেন, সকাল ১০টার দিকে ৫টি গাড়িতে করে প্রায় ২৫ টন হিমায়িত মাছ রফতানির মাধ্যমে আমদানি-রফতানি আবার শুরু হয়েছে। ঈদুল আজহার ছুটিতে দুই দেশের মধ্যে বাণিজ্য কার্যক্রম চারদিন বন্ধ ছিল। বৃহস্পতিবার সকালে বন্দরের কার্যক্রম স্বাভাবিক হয়েছে। আখাউড়া স্থলবন্দর আমদানি-রফতানিকারক অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম বলেন, পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষ্যে গত রবিবার থেকে বুধবার পর্যন্ত টানা চারদিন বন্দরে ব্যবসায়ী কার্যক্রম বন্ধ ছিল। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে সব ধরনের বাণিজ্য কার্যক্রম স্বাভাবিক রয়েছে। আখাউড়া আন্তর্জাতিক ইমিগ্রেশন চেকপোস্টের ওসি মো. খাইরুল আলম বলেন, পবিত্র ঈদুল আজহার ছুটিতে টানা চারদিন দুই দেশের বাণিজ্য বন্ধ ছিল। তবে ভারত-বাংলাদেশের পাসপোর্টধারী যাত্রী পারাপার অন্য দিনের মতোই স্বাভাবিক ছিল।
ঈদের ছুটি শেষে ঢাকামুখী মানুষের ঢল
প্রিয়জনদের সঙ্গে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করে নিতে ঢাকা ছেড়েছিল মানুষ। সেই আনন্দ ও ছুটি শেষে জীবিকার তাগিদে ফের রাজধানীমুখী হচ্ছে তারা। শুক্রবার (২১ জুন) সকাল থেকেকর্মজীবী মানুষরা ঢাকায় ফিরতে শুরু করেছেন।

বন্যায় ভাসছে সিলেট-সুনামগঞ্জ

কাঁচা মরিচ ও পেঁয়াজের ঝাঁজে নাভিশ্বাস

ফ্রেন্ডশিপ পর্বত জয় করলেন বাংলাদেশের জাফর সাদেক

ছাগলকাণ্ডে বেরিয়ে আসছে চাঞ্চল্যকর তথ্য

ঈদের ছুটি শেষে ঢাকামুখী মানুষের ঢল
বন্যায় ভাসছে সিলেট-সুনামগঞ্জ
ফ্রেন্ডশিপ পর্বত জয় করলেন বাংলাদেশের জাফর সাদেক
ছাগলকাণ্ডে বেরিয়ে আসছে চাঞ্চল্যকর তথ্য
ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলি তাণ্ডব থামছেই না। গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় বৃহস্পতিবার (২০ জুন) এক প্রেস ব্রিফিংয়ে জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় ইসরায়েলি হামলায় আরও ৩৫ জন ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। এছাড়া
ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামী গোষ্ঠী হামাসকে নির্মূল করা সম্ভব নয় বলে জানিয়েছেন ইসরাইলের সেনাবাহিনীর শীর্ষ কর্মকর্তা ড্যানিয়েল হাগারি। বুধবার (১৯ জুন) স্থানীয় সংবাদমাধ্যম চ্যানেল ১৩কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি এমনটি বলেন। খবর ডেইলি
চলতি বছর হজ মৌসুমে সৌদি আরবের মক্কায় অন্তত ৫৫০ হজযাত্রীর মৃত্যু হয়েছে। তাদের প্রায় সবাই অসহনীয় গরমে মারা গেছেন। মৃতদের মধ্যে বাংলাদেশের ২১ জন হজযাত্রী রয়েছেন। তবে এবার সবচেয়ে বেশি
প্রভাবশালী গণমাধ্যম নিউইয়র্ক টাইমসের একটি তদন্তে ইসরায়েলের বন্দিশিবিরে আটক ফিলিস্তিনিদের নিপীড়ন-নির্যাতনের রোমহর্ষ চিত্র উঠে এসেছে। ওই শিবিরের সাবেক বন্দী, ইসরায়েলের সামরিক কর্মকর্তা, চিকিৎসক ও সেনাদের সাক্ষাৎকারের ভিত্তিতে তিন মাস ধরে
কারিগরি ত্রুটির কারণে রাশিয়ার যুদ্ধ বিমান (এসইউ-৩৪) ককেশাস পর্বতে বিধ্বস্ত হয়েছে। এ সময় বিমানে থাকা ক্রু নিহত হয়েছেন।  মঙ্গলবার দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে রাশিয়ার সংবাদ সংস্থাগুলো এ তথ্য জানিয়েছে। খবর
ভারতের নতুন মন্ত্রিসভায় কারা স্থান পেয়েছেন তার তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। নতুন মন্ত্রিসভায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব দেয়া হয়েছে অমিত শাহকে। তিনি এর আগেও এই মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পালন করেছেন। পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে এস
টিকটকার মামুনের পক্ষ নিলেন তসলিমা!
টিকটকার প্রিন্স মামুনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। লায়লা আক্তার ফারহাদকে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণের অভিযোগে তাকে গ্রেফতার করা হয়। যা নিয়ে ক’দিন ধরেই তোলপার নেট দুনিয়া। চলছে আলোচনা-সমালোচনা। বিষয়টি নিয়ে নানা মন্তব্য করছেন নেটিজেনরা। কেউ লায়লার পক্ষে কেউবা মামুনের পক্ষে কথা বলছেন। আবার অনেকেই এড়িয়ে যাচ্ছেন। এবার এ ঘটনা নিয়ে মুখ খুলেছেন নির্বাসিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন। বুধবার (১২ জুন) নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে একটি পোস্ট দিয়েছেন তসলিমা নাসরিন। যেখানে টিকটকার মামুনের পক্ষ নিয়ে শেয়ার করেছেন নানা কথা। ফেসবুক পোস্টে তিনি লিখেছেন, ‘প্রিন্স মামুনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। প্রিন্স মামুন ছিল লায়লা আক্তারের জিগোলো। সেই অল্প বয়সী তরুণদের জিগোলো বলা হয় যারা টাকা পয়সা আর নানা উপহারসামগ্রীর বিনিময়ে বয়স্কা মহিলাদের সঙ্গ দেয়। মূলত যৌনসঙ্গ। ৪৮ বছর বয়সী লায়লা ২৪ বছর বয়সী মামুনকে জিগোলো হিসেবেই রেখেছিলেন। মামুনকে তিনি মাঝে মাঝে টাকা দিতেন, তার বিনিময়ে সুদর্শন তরুণটির সঙ্গ উপভোগ করতেন। মামুনকে শুধু যৌনসঙ্গী হিসেবে ব্যবহার করতেন না, মামুনকে তিনি টাকা রোজগারের জন্যও ব্যবহার করতেন। মামুনের পেছনে তিনি যত টাকা ব্যয় করতেন, তার চেয়ে বেশি তিনি মামুনের সঙ্গে ভিডিও বানিয়ে আয় করতেন। জনপ্রিয় টিকটকার মামুন নাচতো বা গানের সঙ্গে ঠোঁট মেলাতো, তার পাশে রঙ করা পুতুলের মতো দাঁড়িয়ে থাকতেন লায়লা। এসব অর্থহীন রুচিহীন ভিডিও ইউটিউব, ইন্সটাগ্রাম, ফেসবুকে আপলোড করতেন তিনি। শুধু নাচ গানের ভিডিও নয়, মামুন খাচ্ছে, মামুন হাসছে, মামুন খেলছে– সব কিছুর ভিডিও তার করা চাই, মামুনের জন্য ভিউয়ার সংখ্যা এত বেশি ছিল যে, তিনি এ থেকে ভালো টাকা রোজগার করতেন।  করতেনই বা বলি কেন, রোজগার এখনো করছেন। তিনি ধনী। মামুন দরিদ্র। তিনি মামুনকে নিজের বাড়িতে আশ্রয় দিয়েছেন, মামুনকে খাওয়াচ্ছেন, পরাচ্ছেন। ইচ্ছে হয় মামুনকে তিনি টাকার বিনিময়ে সারাজীবনের জন্য কিনে নেন। মামুনকে বিয়ে করতে চান লায়লা। মামুনের কোনো ইচ্ছে নেই তার দ্বিগুণ বয়সী মহিলাকে বিয়ে করার।  চাপাচাপি করলে এক শর্তে সে রাজি, তাকে লায়লার বাড়িটি লিখে দিতে হবে। পাকা জিগোলোর মতোই ব্যবহার মামুনের। কয়েক লাখ টাকা দিয়ে লায়লা হয়তো ভেবেছিলেন নিজের স্বপ্নপূরণ করবেন। কিন্তু মামুন চায় বাড়ি। মামুনকে লায়লা বাড়ি লিখে দেবেন কথা দিয়েও দেন না। মামুন সে কারণে লায়লাকে ছেড়ে চলে যায়। লায়লার দরকার সঙ্গ, মামুনের দরকার টাকা। এ সম্পর্কটি শুরু থেকেই ছিল দেয়া নেয়ার। বাড়ি না পেয়ে লায়লার সঙ্গে তিন বছরের সম্পর্কে ইতি টানলেন মামুন। সম্পর্কে ইতি টানা মানবাধিকারের অংশ। মেনে নেয়া উচিত ছিল লায়লার, কিন্তু তিনি মেনে নেন না। যদিও যে কারোরই যেকোন বন্ধুত্বের, প্রেমের, বিয়ের, এমনকি জিগোলোর সম্পর্ক চুকিয়ে ফেলার অধিকার আছে, কিন্তু মামুনকে সে অধিকার কিছুতেই দিতে চাননি লায়লা।  ফেসবুকে সারাক্ষণই মামুনের জন্য তার কান্নাকাটি চলতে থাকে, মিডিয়ার লোক নিয়ে চলে যান মামুনের গ্রামের বাড়িতে। মানুষকে দেখান মামুনকে তিনি খুব ভালোবাসেন। মামুনকে তিনি সত্যিই যদি ভালোবাসতেন, মামুন তার পায়ের নখের যোগ্য নয়, এ কথা বলতেন না বারবার। মামুনের বিরুদ্ধে মামলা করে তার সর্বনাশ করতেন না! লায়লার মতো চালাক চতুর নয় মামুন। সে বিশ্বাস করেছিল লায়লা তার ফ্যান, লায়লা তাকে ভালোবাসেন। লায়লা তার জন্য সর্বস্ব ত্যাগ করবে। হয়তো কোনো দিন সে ভাবতে পারেনি, লায়লা তাকে একদিন জেলখানার ভাত খাওয়াবে। মামুনের পারিবারিক সমস্ত তথ্য প্রকাশ করলেও তার নিজের বয়স কত, তার বিয়ে হয়েছিল কিনা, তার সন্তান আছে কিনা ইত্যাদি পারিবারিক কোনো তথ্যই প্রকাশ করেননি। মিডিয়া কোনো প্রশ্ন করলে তিনি কায়দা করে উত্তর এড়িয়ে গেছেন। মামুনের পরিবারের দারিদ্র্য নিয়ে, মামুন এবং তার পরিবারের সবার শিক্ষাগত যোগ্যতা নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় কম তুচ্ছ তাচ্ছিল্য তিনি করেননি। নিজের ধন দৌলত নিয়ে লায়লা সব সময় গর্ব করেছেন, নিজের ডিগ্রি, নিজের বেতন, নিজের বাড়ি গাড়ি ধনদৌলত নিয়ে তার অহঙ্কারের শেষ নেই।  আর মামুনকে কখন কত টাকা দিয়ে সাহায্য করেছেন, মামুনকে কত টাকা দামের কী উপহার দিয়েছেন, সবই বিশ্ববাসীকে বারবারই জানিয়ে দিয়েছেন। মামুন লায়লাকে বিয়ে করতে রাজি নয় বলে লায়লা এখন মামুনের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা ঠুকে দিয়েছেন, মামুন নাকি তাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ করেছে। এমন বানোয়াট কথা অসৎ না হলে বলা যায় না। বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে যৌন সম্পর্ক করলে প্রতারণা হয়, ধর্ষণ হয় না। অনুমতি ছাড়া যৌনসম্পর্ক করলে হয় ধর্ষণ।  লায়লার তো এ ব্যাপারে অনুমতির কোনো অভাব ছিল না। লায়লা বুঝে গিয়েছেন মামুন আর তার সঙ্গে কোনো সম্পর্ক রাখবে না, জিগোলো সম্পর্কটিও চুকে বুকে গেছে। মামুনকে আগের মতো নিয়ন্ত্রণ করাও তার পক্ষে সম্ভব হবে না। বিয়ে করা তো হবেই না। এ কারণে তার এত রাগ মামুনের ওপর। মামুন যে তাকে ভালোবেসে বিয়ে করবে না, সে যে বিয়ে করলে টাকা কড়ি আর বাড়ি গাড়ির বিনিময়ে করবে, এটি লায়লা মেনে নিতে পারেননি।  লায়লা বহুবার মামুনকে হুমকি দিয়েছেন তাকে বিয়ে না করলে বা তার সঙ্গে একত্রবাস না করলে, তার সঙ্গে আগের মতো ‘কন্টেন্ট ক্রিয়েট’ না করলে বা ভিডিও না বানালে তিনি মামুনের বিরুদ্ধে দায়ের করা ধর্ষণের মামলা তুলে নেবেন না। যখন দেখেছেন মামুন কিছুতেই তার কাছে ফিরে যাবে না, তখন বলেছেন, তাকে ৯০ লাখ টাকা দিলে তিনি মামলা তুলে নেবেন। মামুনকে কী করে হেনস্থা করা যায়, কীভাবে তাকে নিঃস্ব করে ফেলা যায়, তিনি করছেন, এভাবেই তিনি তার অনুদার এবং প্রতিশোধপরায়ণ চেহারাটি প্রকাশ করছেন। মামুনের বড় দুই ভাই বোন প্রতিবন্ধী। তারা কথা বলতে পারে না। তার অসহায় মা বাবা আর ভাইবোনের জন্য টিকটিক আর ইউটিউব থেকে উপার্জিত টাকা দিয়ে একখানা একতলা বাড়ি বানিয়েছে মামুন, পরিবারের মানুষগুলোর মাথা গোজার ঠাঁই হয়েছে।  কিছুদিন আগে ঢাকায় একটি সেলুনের ব্যবসা শুরু করেছে সে। হাজারো ভক্ত মামুনকে দেখতে এসেছিল। সেই সেলুনের উদ্বোধনের দিন লায়লা গিয়েছেন। প্রেস কনফারেন্সের ভিড়ে সবাইকে দেখিয়ে নিজের ওড়না দিয়ে মামুনের মুখের ঘাম মুছে দিয়ে দরদী প্রেমিকার অভিনয় করে আসার দুদিন পর লায়লা ধর্ষণের মামলা ঠুকে দিয়েছেন মামুনের বিরুদ্ধে। লায়লার আত্মীয়স্বজন মিলিটারিতে, ক্যান্টনমেন্ট থানার পুলিশও মনে হয় মিলিটারির আদেশ পালন করতে এক পায়ে দাঁড়িয়ে থাকে। সত্যিকার নারী নির্যাতক আর ধর্ষকরা দেশময় ঘুরে বেড়াচ্ছে, পুলিশ তাদের গ্রেফতার করে না। আর মামুনের মতো স্ট্রাগল করা এক তরুণকে তড়িঘড়ি গ্রেফতার করেছে। রিমান্ডে নেয়া হবে বেচারাকে, বেধড়ক পেটানো হবে। যে তরুণ লায়লার চক্রান্তের শিকার, সে এখন শিকার হচ্ছে মিথ্যে মামলার, ফেঁসে গেছে আইনের মারপ্যাঁচে।  মামুনের আত্মীয়স্বজন লায়লার আত্মীয়স্বজনের মতো প্রভাবশালী নয়। সুতরাং মামুনকে ভুগতে হচ্ছে, ভুগতে হবে। না বুঝে সে আটকে গেছে লায়লার পাতা ফাঁদে। মামুনকে মুক্ত করার জন্য, আশা করছি, মানবাধিকারের জন্য যে আইনজীবীরা লড়েন, এগিয়ে আসবেন। লায়লা আর মামুনের এ দ্বন্দ্ব বা লড়াই আসলে নারীবাদ আর পুরুষতন্ত্রের লড়াই নয়, এ ধনি আর দরিদ্রের লড়াই, সবল আর দুর্বলের লড়াই, দম্ভ আর অসহায়ত্বের লড়াই, শিকারি আর শিকারের লড়াই। নারী হয়ে জন্ম নিয়েছে বলেই সে ভালো, সে সত্যবাদী, এ আমি মনে করি না। পুরুষ যেমন বদমাশ হতে পারে, নারীও তেমন বদমাশ হতে পারে।’ উল্লেখ্য, ১০ জুন প্রিন্স মামুনকে গ্রেফতার করা হয়। পরদিন ১১ জুন ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হয় তাকে। এর আগে গত ৯ জুন প্রিন্স মামুনের বিরুদ্ধে রাজধানীর ক্যান্টনমেন্ট থানায় একটি মামলা করেন লায়লা।
১৬ ঘণ্টা আগে
‘তুফান’ সিনেমার দর্শকদের ওপর হামলা!
শুটিং সেটে ফের রক্তাক্ত প্রিয়াঙ্কা, কী বললেন অভিনেত্রী?
কবি অসীম সাহা মারা গেছেন

এবারও হিন্দি গানে চমক দেখাবেন মাহফুজুর রহমান

বিরাজ করছে ঈদের আমেজ। বিনোদন জগতে ঈদের বড় আকর্ষণ ড. মাহফুজুর রহমানের গান। তিনি প্রতিবার ঈদেই নিজেকে ভিন্নভাবে উপস্থাপন করেন। তার কণ্ঠের জাদুতে মুগ্ধ করেন ভক্তদের। এবারও তার ব্যতিক্রম হবে না। গত ঈদের মতো এবারও হিন্দি গানে চমক দেখাবেন গুণী এই শিল্পী। সংগীতের প্রতি অসম্ভব ভালোবাসা থেকেই শতভাগ সংগীতশিল্পী হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করার চেষ্টায় ব্রত মাহফুজুর রহমান। তাইতো উৎসবকে মুখর করে তুলতে প্রতিবছর অন্যরকম আয়োজনে সামনে আসেন তিনি। জানা গেছে, এবারের ঈদেও একগুচ্ছ গান নিয়ে হাজির হচ্ছেন মাহফুজুর রহমান। বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল এটিএন বাংলায় ঈদের দিন রাত ১০টা ৩০ মিনিটে প্রচার হবে একক সঙ্গীতানুষ্ঠান ‘আমার চোখের আলো’। অনুষ্ঠানে রয়েছে মোট ১০ টি গান। গানগুলোর সুর করেছেন মান্নান মোহাম্মদ ও রাজেশ ঘোষ।   এদিন বাংলা গানের পাশাপাশি অনুষ্ঠানে থাকছে জনপ্রিয় কয়েকটি হিন্দি গান। সেগুলো হচ্ছে নীলে নীলে আম্বার, দিল দে দিয়া হ্যায়, হামে অর জিনে কি, জিনা ইয়াহান মারনা ইয়াহান। এ ছাড়াও আমার চোখের আলো, তুমি তো জানো না প্রিয়, তোমার নিঃশ্বাসে বিষ ছিল, চুপ কেন তুমি চুপ কেন এবং প্রথম প্রেম শিরোনামের গানগুলো গাইবেন ড. মাহফুজুর রহমান।   এছাড়া ঈদের পরদিন রাত ১০ টা৩০ মিনিটে প্রচার হবে দ্বৈত গানের সঙ্গীতানুষ্ঠান ‘ওয়াদা করো’। অনুষ্ঠানে থাকছে কেহেদু তুমছে, তুঝে দেখা তু ইয়ে, মুঝে দিলসে ভুলানা, মেরা দিল ভি কিতনা পাগল, ঢোলনা, তু চিজ বাড়ি হ্যায় মাস্ত মাস্ত, ওয়াদা কারো, সাস মে তেরি, তু তু হ্যায় ওয়াহি দিলনে এবং কিতনি বেচেইন হোকে শিরোনামের গান। ডুয়েট গানগুলোতে ড. মাহফুজুর রহমানের সহশিল্পী হিসেবে রয়েছেন নীলিমা, ভাবনা আহমেদ ও তাহমিনা।

ঈদে নাপিত চরিত্রে আসছেন তিশা

নানা ধরনের চরিত্রে অভিনয় করেন অভিনেত্রী তানজিন তিশা। বিশেষ করে নারীকেন্দ্রিক গল্পে সব সময় আলাদা করে দেখা মেলে তার। এবারও অভিনয় করলেন নারীকেন্দ্রিক গল্পে। ছোটপর্দার এ অভিনেত্রী দেখা যাবে একজন ‘নরসুন্দর’ চরিত্রে। চরিত্রের সঙ্গে মিল রেখে নাটকটির নামকরণ হয়েছে ‘নর-সুন্দরী’। যাকে সহজ বাংলায় বলা যায় ‘নারী নাপিত’ চরিত্রে অভিনয় করছেন তানজিন তিশা। আহমেদ তাওকীরের গল্প ও চিত্রনাট্যে এটি নির্মাণ করছেন তরুণ জনপ্রিয় পরিচালক রাফাত মজুমদার রিংকু। এরই মধ্যে ঢাকার অদূরে কালীগঞ্জে হয়েছে দুই দিনের শুটিং। আরও দুই দিন শুটিং করতে হবে ঢাকায়।  পরিচালক বলেন, ‘আমরা খুব যত্ন নিয়ে কাজটা করছি। গল্প ও চরিত্র দুটোই বেশ আলাদা। এমন গল্প নিয়ে কাজ করা আনন্দের।’ এদিকে গল্প প্রসঙ্গে নাট্যকার আহমেদ তাওকীর বলেন, ‘রাজনৈতিক গণ্ডগোলে এক নরসুন্দর মৃত্যুবরণ করে। বাবার পেশাকেই বেছে নেয় তার তরুণী মেয়ে। কিন্তু সে বেছে নিলেও গ্রামের মানুষ ভালো চোখে দেখে না। তাকে গ্রামছাড়া করা হয়। শহরে এসেও পড়ে নানা বিপত্তিতে। এসব নিয়েই আমাদের গল্প।’ তানজিন তিশা ছাড়াও নাটকটিতে অভিনয় করেছেন শরীফ সিরাজ, মোমেনা চৌধুরী, নরেশ ভূইয়াসহ অনেকেই।  পরিচালক জানান, বাংলাভিশনের জন্য নির্মিত হচ্ছে নাটকটি। আসছে ঈদে এটি প্রচারিত হবে।

অন্তরঙ্গ দৃশ্যে সামান্থা-নাগা

বিয়ের চার বছরের মাথায় ২০২১ সালে বিচ্ছেদের পথে হাঁটেন দক্ষিণী তারকা যুগল সামান্থা রুথ প্রভু ও নাগা চৈতন্য। যদিও অনুরাগীদের হৃদয়ে এখনও অটুট নাগা চৈতন্য ও সামান্থা রুথ প্রভুর জুটি। বিবাহবিচ্ছেদের পর দীর্ঘ কঠিন সময় পার করতে হয়েছে সামান্থাকে। সব কিছু সামলে পেশাদার অভিনেত্রী হিসেবে নিজের জীবনের অন্যতম সেরা সময় উপভোগ করেছেন এখন। কয়েক বছর আগে দক্ষিণী ইন্ডাস্ট্রি থেকে বলিউডে পা রেখেছেন তিনি। বলিউডে হাতেখড়ির পরে ‘দ্য ফ্যামিলি ম্যান’ সিরিজে মার্ভেল খ্যাত রুশো ব্রাদার্সের আন্তর্জাতিক সিরিজ ‘সিটাডেল’-এর ভারতীয় সংস্করণেও কাজ করেছেন। এর মধ্যেই ফের মুক্তি পেল নাগা ও সামন্থা অভিনীত ছবি ‘মনম’। প্রায় ১০ বছর আগে মুক্তি পাওয়া ছবি ফের সিনেমা হলে। দেখতে গেলেন নাগা নিজেও। প্রেক্ষাগৃহে অন্তরঙ্গ দৃশ্যে ধরা পড়লেন সামান্থা-নাগা। হলের মধ্যে সেসময় উচ্ছ্বসে ফেটে পড়ছেন দর্শক। এমন সময় নাগার দিকে ক্যামেরা ঘোরাতেই ঠোঁটের কোণায় ফুটে উঠল স্মিত হাসি। দর্শক যখন তাদের পছন্দের জুটিকে ফের পর্দায় দেখে আত্মহারা, আসন ছেড়ে উঠে নাচতে শুরু করেন অনেকেই। সেই সময় দর্শকদের আসনে বসে পড়ার অনুরোধ করতে থাকেন অভিনেতা। তাদের বিয়ে টেকেনি, তবে এখনও তারা তাদের প্রিয় পোষ্যের অভিভাবক। দু’জনে মিলেই দেখভাল করেন তার। যদিও এ মুহূর্তে নিজের মতো করে জীবনটা গুছিয়ে নিয়েছেন অভিনেত্রী। বেশির ভাগ সময় দেশের বাইরেই কাটান সামান্থা।  অন্যদিকে, অভিনেত্রী শোভিতা ধুলিপালার সঙ্গে নতুন করে সম্পর্কে জড়িয়েছেন নাগা। তবে এ বিষয়ে এখনও কোনও মন্তব্য করেননি নাগা। এরই মধ্যে সামান্থার কথা বলতে শোনা যায় নাগাকে। কোন দিকে বইবে তাদের সম্পর্ক, তা ভবিষ্যৎই বলবে!