সোমবার, ০৪ মার্চ, ২০২৪
Monday, 04 March, 2024
পাকিস্তানের নতুন প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরিফ
পাকিস্তানের নতুন প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েছেন শেহবাজ শরিফ। রোববার (৩ মার্চ) দেশটির জাতীয় পরিষদের সংখ্যাগরিষ্ঠ সদস্যদের ভোটে এই পদে নির্বাচিত হন তিনি। এ নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো দক্ষিণ এশিয়ার পরমাণু শক্তিধর এই দেশটির

নিজের ডায়েরিতে যা লিখে গেছেন বৃষ্টি

আগুনে ক্ষতিগ্রস্তদের ১০ লাখ টাকার সহায়তা দেবে যুক্তরাষ্ট্রের 'লাভ শেয়ার বিডি'

গাজায় অপরাধ বন্ধে ঐক্যবদ্ধ উদ্যোগের আহ্বান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর

৫ জনের মৃত্যুতে ভিকারুননিসায় ছুটি

বৈশ্বিক ইস্যুতে বাংলা‌দে‌শের স‌ঙ্গে কাজ কর‌তে চায় তুরস্ক
আঞ্চলিক ও বৈশ্বিক ইস‌্যু‌তে বাংলা‌দে‌শের স‌ঙ্গে কাজ করার পাশাপা‌শি রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে প্রত্যাবাসনে অব্যাহত সমর্থনের আশ্বাস দিয়েছেন তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাকান ফিদান। রোববার (৩ মার্চ) আনতালিয়ায় তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর স‌ঙ্গে বৈঠক ক‌রেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। এ সময় বি‌ভিন্ন ইস‌্যু‌তে একস‌ঙ্গে কাজ করার কথা জানান হাকান। বৈঠকে আনতালিয়া ফোরামে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আমন্ত্রণ জানানোর জন্য তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোয়ানকে ধন্যবাদ জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীর ফেরত চিঠি হাকান ফিদানকে হস্তান্তর করেন হাছান। তুরস্কের স্বাধীনতার শতবর্ষ এবং বাংলাদেশ ও তুরস্কের কূটনৈতিক সম্পর্কের ৫০ বছর উপলক্ষ্যে হাকান ফিদানকে অভিনন্দন জানিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তুরস্কের জাতির পিতা কামাল আতাতুর্কের সংগ্রাম থেকে শক্তিশালী অনুপ্রেরণা পেয়েছিলেন এবং দুই ভ্রাতৃপ্রতিম জাতির বন্ধুত্বের উষ্ণ বন্ধন প্রতিনিয়ত দৃঢ়তর হচ্ছে। তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে উপযুক্ত সময়ে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানান ড. হাছান। তি‌নি দুই দেশের মধ্যে কন্ট্রাক্ট ফার্মিংয়ের প্রস্তাব করেন। যেখানে বাংলাদেশি কৃষক ও বিশেষজ্ঞরা তুরস্কে মৌসুমি চাষ করবেন এবং ফলনের পর বাংলাদেশে ফিরে যাবেন। পররাষ্ট্রমন্ত্রীর প্রস্তাবের প‌রি‌প্রেক্ষি‌তে দেশ‌টির পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, তুরস্ক বিষয়টি পরীক্ষা করবে এবং আগামী জুলাই মাসে ঢাকায় পররাষ্ট্র দপ্তরের পরবর্তী পরামর্শের সময় এটি নিয়ে আলোচনার সু‌যোগ র‌য়ে‌ছে।  তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রেসিডেন্ট এরদোয়ানকে দেওয়া প্রশংসাপত্রের জন্য বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে এবং ফোরামে উপস্থিতির জন্য পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান। পাশাপাশি গুরুত্বপূর্ণ আঞ্চলিক ও বৈশ্বিক বিষয়ে একসঙ্গে কাজ করা ও রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে প্রত্যাবাসনে তার দেশের অব্যাহত সমর্থনের আশ্বাস দেন। পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাছান মাহমুদ গাজায় ইসরায়েলি নৃশংসতা বন্ধ করতে এবং আরব দেশগুলোর সঙ্গে আরও ঘনিষ্ঠভাবে তুরস্কের আরও বৃহত্তর ভূমিকা কামনা করেন।  বৈঠকে উভয় নেতা আশা প্রকাশ করেন যে, ইউক্রেনের যুদ্ধ শিগ‌গিরই শেষ হবে এবং জ্বালানি, এলএনজি ও ফসলের দাম কমবে। যা এখন উভয় দেশের পাশাপাশি উন্নয়নশীল বিশ্বের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির জন্য অত্যন্ত প্রয়োজনীয়।  তুর্কি হোপ স্কুল নিয়ে তুরস্ক উত্থাপিত বিষয়ের প্রতিক্রিয়ায় ড. হাছান আশ্বস্ত করেন যে, বাংলাদেশের শিক্ষা ও আইন মন্ত্রণালয় তুর্কি হোপ স্কুল ব্যবস্থাপনার বিষয়টি নিষ্পত্তি করবে।  বৈঠ‌কে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পূর্ব ইউরোপ শাখার মহাপরিচালক শাহ আহমদ শফী এবং তুরস্কে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এম আমানুল হক উপস্থিত ছিলেন।
পাকিস্তানের নতুন প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরিফ
পাকিস্তানের নতুন প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েছেন শেহবাজ শরিফ। রোববার (৩ মার্চ) দেশটির জাতীয় পরিষদের সংখ্যাগরিষ্ঠ সদস্যদের ভোটে এই পদে নির্বাচিত হন তিনি। এ নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো দক্ষিণ এশিয়ার পরমাণু শক্তিধর এই দেশটির

নিজের ডায়েরিতে যা লিখে গেছেন বৃষ্টি

আগুনে ক্ষতিগ্রস্তদের ১০ লাখ টাকার সহায়তা দেবে যুক্তরাষ্ট্রের 'লাভ শেয়ার বিডি'

গাজায় অপরাধ বন্ধে ঐক্যবদ্ধ উদ্যোগের আহ্বান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর

৫ জনের মৃত্যুতে ভিকারুননিসায় ছুটি

বৈশ্বিক ইস্যুতে বাংলা‌দে‌শের স‌ঙ্গে কাজ কর‌তে চায় তুরস্ক
নিজের ডায়েরিতে যা লিখে গেছেন বৃষ্টি
বেইলি রোডে আগুন: / আগুনে ক্ষতিগ্রস্তদের ১০ লাখ টাকার সহায়তা দেবে যুক্তরাষ্ট্রের 'লাভ শেয়ার বিডি'
গাজায় অপরাধ বন্ধে ঐক্যবদ্ধ উদ্যোগের আহ্বান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর
পাকিস্তানের নতুন প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েছেন শেহবাজ শরিফ। রোববার (৩ মার্চ) দেশটির জাতীয় পরিষদের সংখ্যাগরিষ্ঠ সদস্যদের ভোটে এই পদে নির্বাচিত হন তিনি। এ নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো দক্ষিণ এশিয়ার পরমাণু শক্তিধর এই দেশটির
তিন রাজ্যে রিপাবলিকান দলের প্রার্থী নির্বাচনে বড় জয় পেয়েছেন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগান, মিসৌরি এবং আইডাহো রাজ্যে তিনি তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী নিকি হ্যালিকে বড় ব্যবধানে হারিয়েছেন
রাজধানীর বেইলি রোডের কাচ্চি ভাই রেস্টুরেন্টে লাগা আগুনে নারী, পুরুষ ও শিশুসহ ৪৪ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। দগ্ধ আরও বেশ কয়েকজন শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে
গাজার অন্তত পাঁচ লাখ ৭৬ হাজার বা মোট জনগোষ্ঠীর এক-চতুর্থাংশ মানুষ দুর্ভিক্ষের দ্বারপ্রান্তে রয়েছেন। জরুরি উদ্যোগ না নেয়া হলে গাজার সব এলাকায় বড় আকারে দুর্ভিক্ষ ছড়িয়ে পড়বে বলে জানিয়েছেন জাতিসংঘের
ইসরায়েল ফিলিস্তিনিদের ইচ্ছাকৃতভাবে অনাহারে মেরে ফেলার পরিকল্পনা করেছে বলে অভিযোগ করেছে জাতিসংঘের বিশেষ র‍্যাপোর্টিয়ার মাইকেল ফাখরি। তিনি বলেন, এই ইচ্ছাকৃত অপরাধের জন্য ইসরায়েলকে যুদ্ধাপরাধ ও গণহত্যার দায়ে জবাবদিহির আওতায় আনা
পাকিস্তানের পাঞ্জাবে প্রথম নারী মুখ্যমন্ত্রী হতে যাচ্ছেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের মেয়ে মরিয়ম নওয়াজ। গত ৮ ফেব্রুয়ারির নির্বাচনে পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজ (পিএমএল-এন) পাঞ্জাব প্রদেশে সংখ্যাগরিষ্ঠতা লাভ করেছে। সোমবার (২৬ ফেব্রুয়ারি)
সন্তান হওয়ার পর অবসাদে ভুগছেন ইলিয়ানা!
কিছুদিন আগেই মাসে মা হয়েছেন বলিউড অভিনেত্রী ইলিয়ানা ডিক্রুজ। কিন্তু তারপরই ডিপ্রেশনে ভুগেছেন তিনি! মা হওয়ার অভিজ্ঞতার পাশাপাশি সেই ডিপ্রেশন নিয়েও এদিন তিনি কথা বললেন। মা হওয়ার পর নিজের একটি ছবি ইনস্টায় পোস্ট করেন ইলিয়ানা। সঙ্গে লেখেন, ‘বহুদিন হয়ে গেল নিজের কোনও ছবি তোলা হয় না বা পোস্ট করা হয় না। আসলে মা হওয়ার পর সন্তান এবং সংসার সামলাতে সামলাতে আর নিজের জন্য সময়ই পাই না। আমি সাধরনত আজকাল অধিকাংশ সময়ই পাজামা পরে থাকি। আর সঙ্গে চুলটাকে খোঁপা করে বেঁধে রাখি যাতে আমার ছেলে সেটা ধরে টানতে না পারে। ফলে এসব কারণেই আমার কখনও আজকাল মাথায় আসে না যে সেলফি তুলব। আসলে সত্যিটা কখনও কখনও বড্ড নিষ্ঠুর হয়। না ঘুমিয়েও কাজ দেয় না।’ এরপর তিনি ব্যাখ্যা করে লেখেন, ‘না অভিযোগ করছি না। আসলে সন্তান সত্যিই বড্ড সুন্দর। আমার জীবনের সব থেকে সুন্দর জিনিস ও। কিন্তু আমরা কেউ মা হওয়ার পর যে ডিপ্রেশন হয় সেটা নিয়ে কথা বলি না। কিন্তু এটা সত্যিই হয়। তাই আমি রোজ নিয়মিত চেষ্টা করি অনন্ত দিনের আধ ঘণ্টা সময় নিজেকে দিতে, নিজেকে ভালো রাখতে। এটার জন্য আমি নিয়মিত আধ ঘণ্টা ব্যায়াম করি। তারপর ভালো কর স্নান করি। এটা আমার খুব কাজ দেয়। কিন্তু আবার অনেক সময় করতেও পারি না। কিন্তু আমি কাজে ফেরার চেষ্টা করছি। আর তারই এক ঝলক প্রকাশ্যে আনলাম।’ গত আগস্টে পুত্র সন্তানের মা হন ইলিয়ানা। তার নাম কোয়া ফোনিক্স ডোলান। অভিনেত্রীকে আগামীতে দো অউর দো পেয়ার সিনেমাতে দেখা যাবে। সেখানে তার সঙ্গে থাকবেন বিদ্যা বালান, প্রতীক গান্ধী, প্রমুখ।
১৭ ঘণ্টা আগে
সুস্থ থাকতে চুম্বনের বিভিন্ন ধরন
বেইলি রোডে অগ্নিকাণ্ড ‘আমরা কত অসহায়’
মা হচ্ছেন দীপিকা, যা বললেন আলিয়া-প্রিয়াঙ্কারা

বরেণ্য অভিনেতা মামুনুর রশীদের ৭৬তম জন্মদিন আজ

দেশের জনপ্রিয় বরেণ্য অভিনেতা মামুনুর রশীদের জন্মদিন বৃহস্পতিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি)। ১৯৪৮ সালের আজকের দিনেই পৃথিবীর আলো দেখেছেন তিনি। জীবনের ৭৫ বসন্ত পেরিয়ে ৭৬ পা রাখলেন এই অভিনেতা। তবে এখনও নিজকে ১৯ বছরের তরুণ বলেই মনে করেন মামুনুর রশীদ। অন্যান্যদের থেকে তার জন্মদিনের বিশেষত্ব হচ্ছে প্রতি বছর নয়, চার বছর পর পর আসে অভিনেতার এই বিশেষ দিন। মামুনুর রশীদ একাধারে নাট্যকার, অভিনেতা ও নাট্য পরিচালক। মঞ্চ, টেলিভিশন ও চলচ্চিত্রে সমান তালে কাজ করে দর্শকহৃদয়ে জায়গা করে নেন তিনি। ইতোমধ্যে পাঁচ দশকের বেশি সময় অভিনয়ে কাটিয়ে দিয়েছেন এই অভিনেতা। মামুনুর রশীদ তার নাটকে শ্রেণিসংগ্রাম, ক্ষুদ্র জাতিসত্তার অধিকার আদায়ের নানা আন্দোলনসহ বিভিন্ন সামাজিক ইস্যু তুলে ধরেন। লেখা ও নির্দেশনার মাধ্যমে হয়ে উঠেছেন নাট্যজগতে অপরিহার্য একজন। ১৯৪৮ সালের ২৯ ফেব্রুয়ারি টাংগাইল জেলার কালিহাতির পাইকড়া গ্রামে মাতুলালয়ে জন্মগ্রহণ নেন মামুনুর রশীদ। অভিনেতার বাবা হারুনুর রশীদ ডাক বিভাগের একজন সরকারি চাকরিজীবী। সেই সুবাদে দেশের বিভিন্ন জেলার স্কুল-কলেজে লেখাপড়া করেছেন। ঢাকা পলিটেকনিক থেকে পুরকৌশল বিভাগে ডিপ্লোমা করার পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে রাষ্ট্রবিজ্ঞানে বিএ ও এমএ ডিগ্রি নিয়ে পড়াশুনা সম্পন্ন করেন মামুনুর রশীদ। স্কুলজীবনে অভিনয় করতেন মামুনুর রশীদ। অভিনয়ের নেশা তখনই তৈরি হয় এই অভিনেতার। পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে পড়ার সময়ই মামুনুর রশীদ তার প্রথম নাটক লেখেন। নাটকটির নাম— ‘মহানগরীতে একদিন’। তবে অভিনয় পেশা হবে, এমনটা কোনো দিন ভাবেননি তিনি। মুক্তিযুদ্ধের সময় ভাবলেন, অভিনয়টাই জীবিকা হবে তার। ১৯৬৭ সালে তিনি তদানীন্তন পূর্ব পাকিস্তানে টেলিভিশনের জন্য নাটক লিখতে শুরু করেন মামুনুর রশীদ। তবে তার নাটকের বিষয়বস্তু ছিল মূলত পারিবারিক। সেসময় কমেডি নাটকও লিখতেন এই অভিনেতা। নাট্যশিল্পের প্রতি প্রকৃত ভালোবাসা শুরু হয় টাংগাইলে তার নিজ গ্রামে যাত্রা ও লোকজ সংস্কৃতির সঙ্গে অভিনেতার নিবিড় পরিচয়ের সূত্র ধরে। ১৯৭১ সালে তিনি বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে যোগ দেন এবং জড়িত হন স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের সঙ্গে। মুক্তিযুদ্ধকালীন তার প্রথম রচিত নাটক ‘পশ্চিমের সিঁড়ি’ কলকাতার রবীন্দ্রসদনে মঞ্চায়নের চেষ্টা করেন। কিন্তু তার আগেই ১৬ ডিসেম্বর দেশ স্বাধীনতা অর্জন করায় নাটকটি আর তখন মঞ্চায়িত হয়নি। পরবর্তীতে ১৯৭২ সালে বাংলাদেশে মঞ্চায়িত হয় নাটকটি। সেই সময়টাও তার নাট্যচর্চায় প্রতিফলিত হয়েছে বিভিন্ন সময়ে। মুক্তিযুদ্ধের পর শুরু হয় তার আরেক নাট্যসংগ্রাম ‘মুক্ত নাটক আন্দোলন’। ১৯৭২ সালে কলকাতা থেকে স্বাধীন বাংলাদেশে ফিরেই মামুনুর রশীদ তৈরি করেন ‘আরণ্যক নাট্যদল’। মামুনুর রশীদের উল্লেখিত মঞ্চ ও টিভি নাটকগুলো হলো— মঞ্চ- ‘পশ্চিমের সিঁড়ি’, ‘গন্ধর্ব নগরী’, ‘ওরা কদম আলী’, ‘অববাহিকা’, ‘জয় জয়ন্তী’, ‘সংক্রান্তি’, ‘বনাম রাঢ়াং’, ‘ভঙ্গবঙ্গ’। ধারাবাহিক টিভি নাটক- ‘অলসপুর’, ‘সুন্দরী’ ও ‘মুর্দা ফরেশ’। নাট্যকলায় বিশেষ অবদানের জন্য ২০১২ সালে একুশে পদকে ভুষিত হন মামুনুর রশীদের। এছাড়া বাংলা একাডেমি পুরস্কার, জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার, মুনীর চৌধুরী সম্মাননা, মাওলানা ভাসানী পুরস্কার, অনীক থিয়েটার সম্মাননা পুরস্কার পেয়েছেন তিনি।

যে বার্তা দিলেন মাহির স্বামী রাকিব

স্বামী রাকিব সরকারের সঙ্গে মাহিয়া মাহির বিচ্ছেদের খবর কারও অজানা না। সামাজিক মাধ্যমে নায়িকা নিজে এ খবর জানিয়েছেন। তবে বিষয়টি নিয়ে মুখ খোলেননি রাকিব। সংবাদমাধ্যমের প্রশ্নের মুখেও চেপে গেছেন। তবে সামাজিক মাধ্যমে সন্তানের প্রতি নিয়মিত ভালোবাসা জানিয়েছেন তিনি। এবার ছেলে ফারিশের উদ্দেশে দিলেন এক বার্তা। আজ মঙ্গলবার নিজের ফেসবুকে সন্তানের সঙ্গে একটি ছবি প্রকাশ করেছেন। সেখানে ইঙ্গিতে মাহিকে নিয়ে কিছু কথা লিখেছেন। শেষে সন্তানের উদ্দেশে লিখেছেন, সবাই একইরকম ভাগ্য নিয়ে দুনিয়ায় আসে না বাবা। ইন শা আল্লাহ তোমার জন্য বাবাই যথেষ্ট ফারিশ।  এদিকে আস্থার জায়গা খুঁজছিলেন মাহিয়া মাহি। পেয়ে গেছেন আস্তানা। সামাজিক মাধ্যমে সচিত্র জানিয়েছেন নায়িকা। এ নিয়েও নিজের ওই পোস্টে লিখেছেন রাকিব।  তার কথায়, আস্থা…! শব্দটির সাথে যখন ডিক্লেয়ারেশন ইস্যু যুক্ত হয় তখন তার সাথে সাথে বিশ্বাস,নির্ভরতা ছাড়াও গভীরে অনেকগুলো সমার্থকের উপস্থিতি উপলব্ধি হওয়া খুবই প্রাসঙ্গিক। মাহির আস্থার আস্তানায় মাদক দ্রব্য সীসা সাজানো থাকে উল্লেখ করে তিনি লেখেন, ভয়ংকর রাতে আস্থার আস্তানায় সাজানো শীসা। তার সদস্যদের সবাই দেখল। ওই আস্তানার প্রধান ফটোগ্রাফীর অজুহাতে আড়ালেই রয়ে গেল। সপ্তাহ-দশদিনে তো আর এমন আস্থা অর্জন করা সম্ভব না। দিন কয়েক আগে ঘর ভাঙার খবর দেন ঢালিউড অভিনেত্রী মাহিয়া মহি। তিনি জানান স্বামী রাকিব সরকারের সঙ্গে বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। সেসময় এক ভিডিও বার্তায় তিনি বলেছিলেন, আমরা দুজন মিলেই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমাদের মধ্যে কিছু বিষয় নিয়ে সমস্যা রয়েছে। তবে রকিব খুব ভালো মানুষ। তাকে আমি সম্মান করি। অনেক কেয়ারিং সে। খুব দ্রুতই আমরা আনুষ্ঠানিকভাবে বিচ্ছেদে যাচ্ছি। কবে আর কীভাবে হবে সেটাও দুজন মিলেই ঠিক করব।

পপগুরু আজম খানের ৭৪তম জন্মদিন

পুরো নাম মোহাম্মদ মাহবুবুল হক খান। সংগীত অঙ্গনে তিনি আজম খান নামেই পরিচিত। ব্যান্ড জগতের মানুষরা বাংলার পপ সংগীতের কিংবদন্তিকে গুরু বলে সম্বোধন করে থাকেন। ২৮ ফেব্রুয়ারি এই শিল্পীর জন্মদিন । বাংলাদেশের রক গানের জনকের জন্ম ১৯৫০ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি ঢাকার আজিমপুর সরকারি কলোনির ১০ নম্বর কোয়ার্টারে। বাবা আফতাবউদ্দিন আহমেদ, মা জোবেদা খাতুন। বাংলাদেশে স্বাধীনতা পরবর্তী একটি প্রজন্মকে রীতিমতো কাঁপিয়েছেন তিনি। শুধু বাংলাদেশেই নয় গোটা উপমহাদেশেও আজম খান পেয়েছিলেন অসাধারণ জনপ্রিয়তা। ১৯৭১ সালের পর আজম খান ‘উচ্চারণ’ নামে একটি ব্যান্ড প্রতিষ্ঠা করেন। উচ্চারণের গান সংগীত জগতে ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি করে। সেখানে আজম খানের সাথে তার বন্ধু নিলু আর মনসুর গিটার বাজাতেন, সাদেক বাজাতেন ড্রাম। আজম খান প্রধান ভোকাল হিসেবে গান করতেন। ১৯৭২ সালে বিটিভিতে একটি গানের অনুষ্ঠানে অংশ নেয়ার মাধ্যমে তাদের গান তরুণদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ে। সেই অনুষ্ঠানের ‘এতো সুন্দর দুনিয়ায় কিছুই রবে না রে’ ও ‘চার কালেমা সাক্ষী দেবে’ গান দু’টি সরাসরি প্রচার হলো। ব্যাপক প্রশংসা আর তুমুল জনপ্রিয়তা এনে দেয় এ দু’টো গান। দেশজুড়ে পরিচিতি পায় তাদের গান ও দল। ১৯৭৪ সালের আজম খান বাংলাদেশ টেলিভিশনে আরেকটি অনুষ্ঠানে ‘বাংলাদেশ’ (রেললাইনের ঐ বস্তিতে) শিরোনামের গানটি গেয়ে হৈ-চৈ ফেলে দেন। আজম খানের পাড়ার বন্ধু ছিলেন ফিরোজ সাঁই। পরবর্তীকালে তার মাধ্যমে পরিচিত হন ফকির আলমগীর, ফেরদৌস ওয়াহিদ, পিলু মমতাজের সাথে। এক সাথে বেশ কয়েকটা জনপ্রিয় গান করেন তারা। এরই মধ্যে আরেক বন্ধু ইশতিয়াকের পরামর্শে সৃষ্টি করেন একটি এসিড-রক ঘরানার গান ‘জীবনে কিছু পাবোনা এ হে হে!’ বলা হয়, এটি বাংলা গানের ইতিহাসে- প্রথম হার্ডরক! ব্যক্তিগত জীবনে সহজ সরল জীবন যাপন করতেন তিনি। আজম খান বাংলাদেশের প্রখ্যাত সুরকার আলম খানের ছোটভাই। ১৯৭১ সালে একজন সক্রিয় মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে ঢাকায় কয়েকটি গেরিলা অভিযানে অংশ নেন আজম খান। ‘পপ সম্রাট আজম খানকে একুশে পদক দেওয়া হোক’ এই দাবি উঠেছিল অনেক দিন আগে থেকেই। প্রয়াত কণ্ঠশিল্পী ও মুক্তিযোদ্ধা আজম খানের ভক্তকুলদের সেই দাবি পূর্ণ হয়েছে। মরণোত্তর একুশে পদক পেয়েছেন আজম খান। নিজের গাওয়া গানের মাধ্যমে বেঁচে আছেন আজম খান। তার গাওয়া ‘বাংলাদেশ’, ‘রেল লাইনের ঐ বস্তিতে’, ‘ওরে সালেকা, ওরে মালেকা’, ‘আলাল ও দুলাল’, ‘পাপড়ি কেনো বুঝে না’, ‘অনামিকা’, ‘অভিমানী’, ‘আসি আসি বলে’ এর মতো অসংখ্য গান এখনো হৃদয়ে দোলা দিয়ে যায়।